চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে ২৭ বছর পর বিশ্বকাপের ফাইনালে স্বাগতিক ইংল্যান্ড

454

টস জিতে ফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ।

ইংলিশ অধিনায়ক এউইন মরগানও টসে জিতলে প্রথমে ব্যাটিং নিতেন বলে জানান।

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী অস্ট্রেলিয়াকে উড়িয়ে দিয়ে দীর্ঘ ২৭ বছর পর বিশ্বকাপ আসরের ফাইনালে পৌছে গেল স্বাগতিক ইংল্যান্ড। প্রথমে ব্যাট করতে নামা অজিদের ২২৪ রানের জবাবে ১০৭ বল হাতে রেখেই ৮ উইকেটের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে দলটি।

১৯৯২ বিশ্বকাপের পর এবারই প্রথম বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জণ করল ইংলিশরা। আর গতবারের চ্যাম্পিয়নদের এবারের আসর সেমিফাইনালেই থেমে যায়।

অস্ট্রেলিয়া একাদশ: অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনাক), ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভেন স্মিথ, পিটার হ্যান্ডসকম্ব, মার্কাস স্টোইনিস, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, অ্যালেক্স ক্যারি (উইকেটরক্ষক), প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, নাথান লায়ন, জেসন বেহানডর্ফ।

ইংল্যান্ড একাদশ: জেসন রয়, জনি বেয়ারস্টো, জো রুট, এউইন মরগান (অধিনায়ক), বেন স্টোকস, জস বাটলার (উইকেটরক্ষক), ক্রিস ওকস, লিয়াম প্লাঙ্কেট, আদিল রশিদ, জোফরা আর্চার, মার্ক উড।

১৪ জুলাই লর্ডসের মাঠে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

ফল: ইংল্যান্ড ৮ উইকেটে জয়ী

ম্যাচসেরা: ক্রিস ওকস

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

অস্ট্রেলিয়া: ২২৩/১০ (৪৯ ওভার)(ওয়ার্নার ৯, ফিঞ্চ ০, স্মিথ ৮৫, হ্যান্ডসকম্ব ৪, ক্যারি ৪৬, স্টোইনিস ০, ম্যাক্সওয়েল ২২, কামিন্স ৬, স্টার্ক ২৯, বেরেনডর্ফ ১, লায়ন ৫*; ওকস ২০/৩, আর্চার ৩২/২, স্টোকস ২২/০, ‍উড ৪৫/১, প্লাঙ্কেট ৪৪/০, রশিদ ৫৪/৩)

ইংল্যান্ড: ২২৬/২ (৩০ ওভার)(রয় ৮৫, বেয়ারস্টো ৩৪, রুট ৪৯*, মরগান ৪৫*; বেরেনডর্ফ ৮.১-২-৩৮-০, স্টার্ক ৯-০-৭০-১, কামিন্স ৭-০-৩৪-১, লায়ন ৫-০-৪৯-০, স্মিথ ১-০-২১, স্টোইনিস ২-০-১৩-০)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here